সীতাকুণ্ডের দক্ষিণ সলিমপুর ফকিরহাট হজরত ইমামে আজম (রা.) জামে মসজিদ এর জন্য জমি দান

সীতাকুণ্ডের দক্ষিণ সলিমপুর ফকিরহাট হজরত ইমামে আজম (রা.) জামে মসজিদ এর জন্য জমি দান
সীতাকুণ্ডের দক্ষিণ সলিমপুর ফকিরহাট হজরত ইমামে আজম (রা.) জামে মসজিদ এর জন্য জমি দান

পোস্টকার্ড নিউজ ।।

সীতাকুণ্ডের দক্ষিণ সলিমপুর ফকিরহাট পশ্চিম পাড়ায় ধর্মপ্রাণ কিশোর, যুবক, মুরব্বিরা " হজরত ইমামে আজম (রা.) জামে মসজিদ " নামের একটি মসজিদ নির্মাণের উদ্যোগ নিলে নাম প্রকাশ না করা সত্ত্বে এলাকার বিভিন্ন ধর্মপ্রাণ ব্যক্তিগন প্রায়  ৫ গন্ডা ২ কড়া জমি দান করেছেন ।

রবিবার ( ২৫ ডিসেম্বর ) এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই জমি প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয় । এসময় মোনাজাতের মাধ্যমে মসজিদের কাজের আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করা হয় ।  মোনাজাত পরিচালনা করেন মৌলানা মোহাম্মদ শফিউল আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সোলায়মান মেম্বার, মাওলানা মহিউদ্দীন, রসুল হক, নিজাম উদ্দিন লন্ডনী, মাষ্টার নিজাম উদ্দিন, মাওলানা মুজিব উদ্দীন, ডা: সাইফুদ্দিন খালেদ, শামসুল আলম সওঃ, মোহাম্মদ শফিউল আলম, আবুল হাশেম, মুজাম্মেল হক, তসলিম উদ্দীন, মাসুদ, রেজাউল করিম, আরাফাত, নাঈম,  রাজু, লিঠু, তাওহিদুল আলম রিপন, রিফাত, মুশফিক, সৌরভ, ইশান যুবায়ের প্রমুখ। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এলাকায় মুসল্লির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে " হজরত ইমামে আজম (রা.) জামে মসজিদ " নামে একটি মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। যাতে ৪ তলা বিশিষ্ট একটি ভবন নির্মাণ করার পরিকল্পনা করা হয়েছে এবং সাথে একটি এতিমখানা করার কথাও জানান উদ্যোক্তারা।

মসজিদ কমিটির সাথে জড়িতরা বলেন , মুসলিম উম্মাহর কাছে অত্যান্ত প্রিয় ও মর্যাদাপূর্ণ স্থান মসজিদ। মসজিদ আল্লাহর ঘর। আল্লাহর ঘর মসজিদ নির্মাণ, মেরামত, সংস্কার এবং এতে দান-সাহায্য করা মুসলিমদের কাছে অত্যন্ত আবেগ ও গৌরবের বিষয়। তাই তো পৃথিবীজুড়ে হাজারো লাখো দৃষ্টিনন্দন মসজিদ গড়ে উঠেছে মুসলিমদের স্বতঃস্ফূর্ত দানকৃত অর্থ-সম্পদে। আল্লাহ এর জন্য পুরস্কারও ঘোষণা করেছেন। মসজিদ নির্মাণ করাকে হাদিসে সদকায়ে জারিয়া, অর্থাৎ চলমান সদকা হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে। মসজিদ নির্মাণের জন্য দান করলে, যতদিন এই মসজিদে মানুষ ইবাদত বন্দিগী করবে ততদিন এর সওয়াব (কবরে বসেও) বান্দা পেতে থাকবেন। মসজিদ নির্মাণের পাশাপাশি মসজিদে ফ্যান দেওয়া, লাইট ব্যবস্থা করা কিংবা মসজিদের এসি ইত্যাদি ব্যবস্থা করে দিলেও এ সওয়াব পেতে থাকবে দানকারী।

" হজরত ইমামে আজম (রা.)জামে মসজিদ " এর জন্য নির্ধারিত জায়গা ।

তারা বলেন, এতে বোঝে আসে খাঁটি নিয়তে কেবল আল্লাহর জন্য মসজিদ নির্মাণ করে গেলে কবরে বসে বসে এসব আমলের সওয়াব পেতে থাকবে বান্দা। তাই সাধ্যমতো বেশি থেকে বেশি মসজিদ নির্মাণ ও সংস্কারে জান-মাল দিয়ে সহায়তা করা চাই। আল্লাহ আমাদের তাওফিক দান করুন।