নৌ ভ্রমণে ভিড় কাপ্তাই লেকে

কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাই ।।

নৌ ভ্রমণে ভিড় কাপ্তাই লেকে
নৌ ভ্রমণে ভিড় কাপ্তাই লেকে

ঈদুল আযহার ছুটি শুরু হয়েছে গত ৯ আগস্ট থেকে। টানা এই ছুটিতে সবাই প্রিয়জনদের সাথে ঈদ করতে বাড়ি গেছেন। পাশাপাশি পরিবারের সাথে বিভিন্ন দর্শনীয় স্থানে ঘুরে বেড়িয়েছেন। বিনোদন কেন্দ্রগুলোও পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে নিয়েছে নানা পদক্ষেপ। এরমধ্যে কাপ্তাই উপজেলার বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে এবার ঈদে পর্যটকের প্রচুর ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।
সরেজমিন দেখা যায়, কাপ্তাইর লেক প্যারাডাইস পিকনিক স্পট, প্যানোরমা জুম রেস্তোরাঁ, প্রশান্তি পার্ক, বনশ্রী পর্যটন কেন্দ্রসহ বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে পর্যটকের মহাসমারোহ ছিল। তবে বাড়তি আকর্ষণ ছিল কাপ্তাই লেকে নৌ ভ্রমণ। লেকের স্বচ্ছ পানিতে ইঞ্জিন বোর্ট সাজিয়ে নৌ ভ্রমণ করার জন্য অনেককে বোট রিজার্ভ করতে দেখা গেছে। কাপ্তাই জেটিঘাঁট বোট চালক সমিতির সভাপতি মো. ইব্রাহিম জানান, আমাদের কাছে বিভিন্ন আকারের ইঞ্জিন বোট রয়েছে। সর্বনিম্ন ২৫ জন থেকে ২৫০ জন পর্যন্ত ধারণ ক্ষমতা রয়েছে এসব বোটে। ঈদ উপলক্ষে বেশ কয়েকটি বোট ভাড়া হয়েছে। অনেকে সারাদিনের জন্য বোট ভাড়া করেছেন। রোদের তাপে যাতে মানুষের কষ্ট না হয় সেজন্য প্রতিটি বোটে সামিয়ানা টাঙানো হয়েছে। বোটের ভেতরে এবং উপরে বসার জন্য পর্যাপ্ত সংখ্যক প্লাস্টিকের চেয়ারও রাখা হয়েছে।
চট্টগ্রামের হালিশহর থেকে আসা মিনহাজ উদ্দীন নামে একজন জানান, তারা ঈদের পরদিন নৌ ভ্রমণের জন্য ২টি বোট ভাড়া করেছেন। সেগুলোতে তারা শতাধিক পর্যটক নিয়ে কাপ্তাই লেকে নৌ ভ্রমণ করেছেন। সীতাকুণ্ড থেকে একটি বেসরকারি সংস্থার প্রায় তিনশ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে নিয়ে পর্যটক ঈদের ছুটিতে কাপ্তাই বেড়াতে আসেন বলে জানান শফিকুল ইসলাম। তারা জুম রেস্তোরাঁ, লেক প্যারাডাইস পিকনিক স্পট এবং প্রশান্তি পার্ক ভ্রমণ করেন। বিকালে তারা এক ঘণ্টার জন্য কাপ্তাই লেকে নৌ ভ্রমণ করেন। তবে কাপ্তাইয়ে বেড়ানোর মধ্যে নৌ ভ্রমণ তাদের বাড়তি আনন্দ দিয়েছে বলে জানান শফিকুল।
বিনোদন কেন্দ্র প্রশান্তি পার্কের ম্যানেজার মো. মাসুদ তালুকদার জানান, ্‌এখানে বিনোদনের পাশাপাশি পর্যটকদের জন্য চাহিদানুযায়ী খাবার পরিবেশনেরও ব্যবস্থা ছিল। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করার জন্য রয়েছে আকর্ষণীয় মঞ্চ। এবারের ঈদের ছুটিতে প্রায় প্রতিদিন পর্যটকরা এখানে আসছেন। সেনাবাহিনী পরিচালিত কাপ্তাইয়ে আরো দুটি বিনোদন কেন্দ্র রয়েছে। সেগুলো হলো পর্যটন কেন্দ্র ‘লেকশোর’ ও ‘লেক ভিউ আইল্যান্ড’। বিনোদন কেন্দ্র দুটি একেবারে কাপ্তাই লেক ঘেঁষা। দূর দূরান্ত থেকে আসা পর্যটকরা এখানে নৌ ভ্রমণে মেতে উঠেন।
এদিকে কাপ্তাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নাছির উদ্দীন জানান, কাপ্তাইয়ে বেড়াতে এসে পর্যটকরা যাতে কোনো ধরনের হয়রানির শিকার না হন সেজন্য পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা ছিল। লম্বা ছুটিতে মানুষ পছন্দের বিনোদন কেন্দ্রে ইচ্ছামত ভ্রমণ শেষে যে যার গন্তব্যে যেতে পারায় তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন।